ব্রয়লার আপনার শরীরের জন্য ক্ষতিকর নয় তো ? জেনে নিন ব্রয়লার কেন খাওয়া উচিত নয় | Why you should not eat broiler chicken


২০৩০ সালের মধ্যে আমাদের পৃথিবীর জনসংখ্যা আরো প্রায় ১২০ কোটি বেড়ে যাবে। এত বিপুল পরিমান জনসংখ্যার খাবার চাহিদা নিশ্চিত করতে পৃথিবীর মানুষকে অবশ্যই হিমশিম খেতে হবে তা বলার অপেক্ষা রাখে না।
ব্রয়লার আপনার শরীরের জন্য ক্ষতিকর নয় তো ? জেনে নিন ব্রয়লার কেন খাওয়া উচিত নয় | Why you should not eat broiler chicken
এ জন্য বিজ্ঞানীরা এখন থেকে এমন কিছু উপায় বের করছেন যাতে এই বিপুল পরিমান জনসংখ্যার খাদ্য চাহিদা পুরণ করা সম্ভব হয়। আমাদের দেশের মত একটি ছোট এবং জনবহুল দেশে বাড়তি খাবারের চাহিদা পুরনের জন্য পৌল্ট্রী বা ব্রয়লার মুরগীর ভুমিকা অনেক। কারণ কম খরচে অধিক পরিমাণ আমিষ আমরা এর সাহায্যে প্রতিনিয়ত পেয়ে থাকছি। কিন্তু কিছু দিন আগে (মার্চ ৪,২০১৮) আমাদের দেশীও বেসরকারী টিভি চ্যানেল ইন্ডিপেন্ডেন্ট ব্রয়লার মুরগীর ফিড তৈরী সংক্রান্ত একটি বিষয় নিয়ে একটি নিউজ প্রকাশ করে। নিউজটিতে দেখানো হয় কিভাবে গরু-ছাগলের চামড়ার বর্জ্য দিয়ে বিষাক্ত মুরগীর খাবার বা ফিড তৈরী করা হচ্ছে। এতে আরো জানানো হয় কেনো এই ফিড গুলো বিষাক্ত। ট্যানারিগুলোতে চামড়ার মান ঠিক রাখতে (চামড়া যাতে পচে না যায়) প্রায় ১০০ রকমের ভিন্ন ভিন্ন কেমিকেল ব্যবহার করা হয়। এর মধ্যে ক্রোমিয়াম ও ক্যাডমিয়াম অনেক বেশী পরিমাণে ব্যবহার করা হয়। চিকিৎসকদের মতে গরুর বর্জ্য থেকে মাছ ও মুরগীর ফিড বানানো হলে এই ফিড খেয়ে বেড়ে ওঠা মুরগীর মস্তিস্কে এবং হাড়ে (হাড়ের ভেতরের কালো অংশ যাকে আমরা অনেকে ক্যালসিয়াম বলি) ঐ ক্রোমিয়াম জমা হয়। এবং আরো ভয়ংকর বিষয় হল উচ্চ তাপে রান্না করা হলেও এই ক্রোমিয়াম নষ্ট হয়না কারণ উচ্চ তাপে রান্না করা হলে মুরগীর হাড়ের ভেতরে ওই তাপ খুব বেশী পরিমাণে প্রবেশ করতে পারে না। এমন অবস্থায় রান্না করা ওই মুরগীর মস্তিষ্ক বা হাড় খেলে হয়তবা এই ক্রোমিয়াম আপনার দেহেও প্রবেশ করতে পারে যার ফলে কিডনি ড্যামেজ, ক্যান্সার, লিভার সিরোসিসের মত ভয়াবহ রোগ গুলোও হতে পারে।এতো গেলো ওই নিউজ রিপোর্টের কথা, এখন ব্রয়লার মুরগী নিয়ে এমন কিছু বিষয় শেয়ার করবো যা নিয়ে আমরা মোটেও চিন্তা করতে যাই না এবং যা আমাদের অনেকেরই অজানা।

১.৫ কেজি ব্রয়লার হতে কত দিন লাগে
একটা ৫০ গ্রাম বাচ্চা মুরগী থেকে ১৫০০ গ্রাম বা ১.৫ কেজি ব্রয়লার মুরগীতে পরিণত হতে সময় লাগে মাত্র ৪২ থেকে ৪৫ দিন বা ৬ সপ্তাহ। প্রতি সপ্তাহে ২৫০ গ্রাম করে ওজন বাড়ে! যেখানে আমাদের দেশী মুরগীগুলো এই পরিমাণ ওজন হতে প্রায় ১ বছর সময় লেগে যায়। কিন্তু এটা কিভাবে সম্ভব হয় একবারো ভেবেছেন কি? একটা ফার্মে বাচ্চা ব্রয়লার ছোট থেকে বড় হওয়াকালীন সময়ে কয়েকদিন পর পর বিভিন্ন হরমোন এবং স্টেরয়েড এর দেহে ইঞ্জেক্ট করা হয় যাতে করে এর বৃদ্ধি (faster growth) তাড়াতাড়ি হয়।

ব্রয়লার দৌড়াতে বা উড়তে পারেনা কেন
যেখানে আমাদের দেশীয় মুরগীগুলো অনেক বেশী পরিমাণে সচল সেখানে ব্রয়লার মুরগীগুলো এর ধারে কাছেও থাকেনা। ফার্মে ব্রয়লারগুলোর দিকে দেখলে মনে হয় যেন সারা দিন বসে থাকা আর খাওয়া ছাড়া আর কিছুই জানেনা।
আসলে এমনটা হবার কারণ হচ্ছে ব্রয়লারের ফিডে আর্সেনিকের ব্যবহার। ব্রয়লারের মাংসের ওজন বাড়ানোর জন্য এর ফিডে আর্সেনিক ব্যবহার করা হয়। এ জন্য ব্রয়লার মুরগী দৌড়াতে পারেনা কারণ এর দেহ পুরোটায় ফোলা/ফাপা থাকে।

ব্রয়লার আপনার শরীরের জন্য ক্ষতিকর নয় তো ? জেনে নিন ব্রয়লার কেন খাওয়া উচিত নয় | Why you should not eat broiler chicken

তাহলে কি ব্রয়লার খাব না
যদি আপনার দেশী মুরগী,কবুতর অথবা টার্কী খাওয়ার মত সামর্থ বা ক্যাপেবিলিটি থাকে তাহলে ব্রয়লার না খাওয়াই ভালো হবে। কিন্তু সমস্যা হলে খেতে পারেন তবে এর হাড় (যদিও আমরা বেশীর ভাগ ব্রয়লার প্রিয় মানুষই ব্রয়লারের হাড় খুব পছন্দ করি) না খাওয়াই ভালো হবে। কারণ রান্নার পর এর  মাংস অনেকটায় খাওয়ার উপযোগী হয় এবং মাংসে তেমন কোন ক্ষতিকারক উপাদান যা আমাদের দেহের জন্য ক্ষতিকর হতে পারে সেগুলো থাকে না। তবে এ জন্য অবশ্যই ১৬৫ ডিগ্রী ফারেনহাইট তাপমাত্রায় রান্না করাটা অনেক বেশী জরুরী।


লিখাটি আপনার কাছে সচেতনতামুলক মনে হলে বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন এবং ব্রয়লার নিয়ে আপনার নিজস্ব মতামত কমেন্ট বক্সে লিখে ফেলুন। আপনার মতামত আমাদেরকে এরকম সচেতনমুলক আর্টিকেল লিখতে অনুপ্রেরণা যোগাবে। আজ এ পর্যন্তই সুস্থ্য থাকুন-ভালো থাকুন।
ব্রয়লার আপনার শরীরের জন্য ক্ষতিকর নয় তো ? জেনে নিন ব্রয়লার কেন খাওয়া উচিত নয় | Why you should not eat broiler chicken ব্রয়লার আপনার শরীরের জন্য ক্ষতিকর নয় তো ? জেনে নিন ব্রয়লার কেন খাওয়া উচিত নয় | Why you should not eat broiler chicken Reviewed by Rone Ahmed on July 27, 2018 Rating: 5

No comments:

Powered by Blogger.